রবিবার, ১৪ জুলাই ২০২৪, ১২:৫৭ পূর্বাহ্ন

ট্রাস্ট ইস্যুতে আরো একধাপ এগিয়ে চট্টগ্রামের ফ্রিল্যান্সার প্রিন্স হৃদয়

আজকের পোস্ট ডেস্ক
  • সর্বশেষ আপডেট : শুক্রবার, ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০২২
  • ১৫১ বার পড়া হয়েছে /

ফ্রিল্যান্সিং খাত থেকে বছরে এক বিলিয়ন ডলার আয় করছে বাংলাদেশ। ২০২৫ সালের মধ্যে এ খাতের আয় ২ থেকে ৩ বিলিয়ন ডলারে উন্নীত হবে বলেও ধারনা করছে বাংলাদেশ সরকার।

দেশের ফ্রিল্যান্সিং খাতে আয় বাড়িয়ে ট্রাস্ট ইস্যুতে একধাপ এগিয়ে আছেন চট্টগ্রামের ফ্রিল্যান্সার এস.এম.নাসির হোসাইন (প্রিন্স হৃদয়)।

ফ্রিল্যান্সিং সম্পর্কে তিনি গণমাধ্যমকে বলেন, ফ্রিল্যান্সিং সহজ কাজ নয়। তেমনি একজন সফল ফ্রিল্যান্সারের আয় ও কম নয়।ফ্রিল্যান্সিং বিশ্বের যে কোনো জায়গা থেকে করা যায়।এটার জন্য আলাদা কোনো অফিসের প্রয়োজন নেই। আপনি ঘরে বসেও ফ্রিল্যান্সিং কাজ করে টাকা ইনকাম করতে পারবেন।আর এটার জন্য প্রয়োজন,ধৈর্য, শক্তি,মনোবল,মেধা ও ইচ্ছাশক্তি।

প্রিন্স হৃদয়ের এ যাবত কালের ফ্রিল্যান্সিং এর অভিজ্ঞতা সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি বলেন
আমি মূলত আমি যা নিয়ে কাজ করি তার মধ্যে হলো-ভার্চুয়াল ফেসবুক অ্যাসিসটিং, মোবাইল এপ ডেভেলপমেন্ট ইউটিউবার।

তিনি ফ্রিল্যান্সিং সম্পর্কে নতুনদেরকে ধারনা দেয়ার জন্য বলেন ফ্রিল্যান্সিং অনেক রকমের হতে পারে,তার মধ্যে কয়েকটি হলো-

১।কপিরাইট ও ফ্রিল্যান্সিং রাইটিং
২।কোডিং,প্রোগ্রামিং,ডেভেলপিং
৩।গ্রাফিক ডিজাইনিং
৪।ভার্চুয়াল,ফেসবুক অ্যাসিসটিং
৫।মোবাইল এপ ডেভেলপমেন্ট
৬।এইচ আর ম্যানেজমেন্ট
৭।ইউটিউবার ফ্রিল্যান্সার
এছাড়া আরো অনেক ফ্রিল্যান্সিং নিয়ে কাজ করে।কেউ কোর্স করে কেউ শিখে,কেউ প্রশিক্ষন নিয়ে কাজ করে থাকেন।

তিনি ফ্রিল্যান্সিং এর কোন কোন ধাপে কাজ করেন এরকম প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন মূলত আমি যা নিয়ে কাজ করি তার মধ্যে হলো ভার্চুয়াল ফেসবুক অ্যাসিসটিং, মোবাইল এ্যাপ ডেভেলপমেন্ট, ইউটিউবার এসব নিয়ে কাজ করি।

তিনি আরও বলেন সবচেয়ে বড় কথা,আমার বন্ধুমহলে একটা প্রশ্ন আমি এতো কিছু ফ্রিল্যান্সিং কাজ কিভাবে শিখলাম, কোনো কোর্সের মাধ্যমে কিনা আসলে আমি ছোটোকাল থেকে পড়ালেখার পাশাপাশি মোবাইল নিয়ে অভ্যস্ত ছিলাম। ইচ্ছে, শক্তি,মনোবল,মেধা বিকাশ নিয়ে আমার এ পর্যন্ত আসা।আমার কোনো কোর্স,প্রশিক্ষন করতে হয়নি।যা শিখছি,দেখে দেখে আর নিজের ট্যালেন্ট দিয়ে। মানুষের সহযোগিতা এবং ভালোবাসায় এতটুকু আসা।

ভার্চুয়াল জগতের কি কি সমস্যা তিনি সমাধান করে থাকেন জানতে চাইলে তিনি বলেন-

১.Get Started লক হলে ইনবক্স আনলক করা

২.Two Factor Authorities এর কারণে লগইন করতে না পারলে, ইনবক্স Bypass করা

৩.Upload Your ID (Card Lock) থাকলে ইনবক্স ব্যাক করে দেয়া

৪.Remembering Back (My Personal Account is Memorialized )

৫.রানিং ভেরিফাই করে দেয়া (Bangladesh Identify confirm / Running Verified) 🌿

তবে এসব সমস্যা সমাধানে অবশ্যই আইডির বার্থডের মনে থাকতে হবে।

সর্বশেষ তিনি তরুণদেরকে অনুপ্রাণিত করে বলেন বেকারত্ব সমস্যা সমাধানে ফ্রিল্যান্সিং এ আগ্রহীদেরকে এ পেশায় নিয়োজিত হয়ে দেশের আয় বৃদ্ধিতে সচেষ্ট ভূমিকা রাখার অনুরোধ রাখা উচিত।

আরো পড়ুন

এস এন্ড এফ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড © সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

Developer Design Host BD