সোমবার, ২০ মে ২০২৪, ০৩:৩৯ অপরাহ্ন

ইজতেমায় নিরাপত্তায় থাকবে হেলিকপ্টার

ডেস্ক রিপোর্ট
  • সর্বশেষ আপডেট : বুধবার, ১১ জানুয়ারি, ২০২৩
  • ৮৮ বার পড়া হয়েছে / ইপেপার / প্রিন্ট ইপেপার / প্রিন্ট

বাংলাদেশ পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) চৌধুরী আবদুল্লাহ আল-মামুন বলেছেন, বিশ্ব ইজতেমা নিরাপদে ও সুষ্ঠুভাবে আয়োজনে পর্যাপ্ত নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। ইজতেমার নিরাপত্তায় টহলে থাকবে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‌্যাব) হেলিকপ্টার। চৌধুরী আবদুল্লাহ আল-মামুন বলেন, সুষ্ঠুভাবে ইজতেমা আয়োজনে পুলিশ, র‌্যাবসহ অন্যান্য আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ও প্রশাসন সবার সঙ্গে সমন্বয়ের মাধ্যমে কাজ করছি আমরা। আজ বুধবার (১১ জানুয়ারি) টঙ্গীতে বিশ্ব ইজতেমা মাঠের সার্বিক নিরাপত্তা পরিস্থিতি এবং বিদেশি মেহমানদের আবাসস্থল পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের ব্রিফিংকালে এ কথা বলেন তিনি। আইজিপি বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান টঙ্গীতে ইজতেমা আয়োজনের জন্য ১৬০ একর জমি দিয়েছিলেন। বর্তমান সরকারের প্রধানমন্ত্রী ইজতেমায় আগত মুসল্লিদের সেবার মান বাড়াতে এখানে ভৌত অবকাঠামোগত উন্নয়ন এবং পরিবেশ সুন্দর ও নিরাপদ করেছেন। পুলিশপ্রধান বলেন, ইজতেমায় আগত মুসল্লিদের যাতায়াতের সুবিধার্থে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি), গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ (জিএমপি) এবং ঢাকা জেলা বিশেষ ব্যবস্থা নিয়েছে। বিভাগ অনুযায়ী গাড়ি পার্কিংয়ের ব্যবস্থা করা হয়েছে। ইজতেমা মাঠের নিরাপত্তায় এখানে ওয়াচ টাওয়ার, কন্ট্রোল রুম রয়েছে। পুলিশ পোশাকে ও সাদা পোশাকে দায়িত্ব পালন করবে। ইজতেমায় জেলা ভিত্তিক খিত্তার ব্যবস্থা থাকবে। এছাড়া র‌্যাবের হেলিকপ্টার নিরাপত্তা টহলে নিয়োজিত থাকবে।চৌধুরী আবদুল্লাহ আল-মামুন বলেন, ইজতেমায় আগত বিদেশিদের সুবিধার্থে ইমিগ্রেশন বিভাগ ও ট্রাফিক বিভাগ বিশেষ ব্যবস্থা নিয়েছে। প্রয়োজনে মুসল্লিদের কন্ট্রোল রুম অথবা জাতীয় জরুরিসেবা ৯৯৯ এ কল করার জন্য বলা হয়েছে।পরে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে আইজিপি বলেন, তাবলীগের উভয়পক্ষের মুরুব্বিদের সঙ্গে সভা করেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। তাদের সঙ্গে আমরাও সভা করেছি। উভয়পক্ষই সৌহার্দ্যপূর্ণ পরিবেশে ইজতেমা পালন করবেন বলে আমাদের কথা দিয়েছে। আরেক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আমাদের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করেই প্রতিনিয়ত কাজ করতে হয়। প্রশিক্ষণ ও অভিজ্ঞতার আলোকে যেকোনো চ্যালেঞ্জ মোকাবিলার সক্ষমতা পুলিশের রয়েছে। এ সময় পুলিশের স্পেশাল ব্রাঞ্চের (এসবি) অতিরিক্ত আইজিপি মো. মনিরুল ইসলাম, অতিরিক্ত আইজিপি (ক্রাইম অ্যান্ড অপারেশনস) মো. আতিকুল ইসলাম, ট্যুরিস্ট পুলিশের অতিরিক্ত আইজিপি হাবিবুর রহমান, গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের কমিশনার মোল্যা নজরুল ইসলাম, ঢাকা রেঞ্জের ডিআইজি সৈয়দ নুরুল ইসলাম, ঊর্ধ্বতন পুলিশ কর্মকর্তারা এবং তাবলীগের মুরুব্বিরা উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানে ‘নিরাপত্তা পরিকল্পনা’ পুস্তকের মোড়ক উন্মোচন করা হয়। দুই পর্বের বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্ব ১৩ থেকে ১৫ জানুয়ারি এবং দ্বিতীয় পর্ব ২০ থেকে ২২ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত হবে।

 

আরো পড়ুন

এস এন্ড এফ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড © সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

Developer Design Host BD