রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪, ১২:০০ অপরাহ্ন

আওয়ামী লীগ সব সময় ইসলামের খেদমত করে: প্রধানমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • সর্বশেষ আপডেট : সোমবার, ১৬ জানুয়ারি, ২০২৩
  • ১০২ বার পড়া হয়েছে / ইপেপার / প্রিন্ট ইপেপার / প্রিন্ট

আওয়ামী লীগ সবসময় ইসলামের খেদমত করে করে বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আজ সোমবার (১৬ জানুয়ারি) দুপুরে সারা দেশের ৫০টি মডেল মসজিদ ও ইসলামিক সাংস্কৃতিক কেন্দ্র উদ্বোধন অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন তিনি।রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে আয়োজিত এ উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী তার সরকারি বাসভবন গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সংযুক্ত হন।ধর্মবিষয়ক প্রতিমন্ত্রী ফরিদুল হক খানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে মন্ত্রিপরিষদের সদস্য, ধর্ম মন্ত্রণালয়সহ বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও বিশিষ্ট আলেমরা উপস্থিত ছিলেন।প্রধানমন্ত্রী বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু ইসলামের খেদমতে অনেক অবদান রেখে গেছেন। আমরাও বঙ্গবন্ধুর দেখানো পথ অনুসরণ করে ইসলামের খেদমত করে চলেছি।মসজিদের ইমামদের প্রতি আহ্বান রেখে তিনি বলেন, ধর্ম নিয়ে কেউ যাতে কাউকে বিভ্রান্ত করতে না পারে ও মানুষের মধ্যে যাতে ধর্মীয় ও মানবিক মূল্যবোধ তৈরি হয় এসব বিষয়ে মসজিদে বয়ানে তুলে ধরেন। খাদ্যে ভেজাল দেওয়া ও মাদকের ক্ষতিকর দিকগুলো তুলে ধরেন।প্রধানমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশে প্রতিটি নাগরিক যেন নিজ নিজ ধর্ম ঠিক মতো পালন করেন সে বিষয়ে সরকার সচেতন রয়েছে।মসজিদের ইমাম-খতিবদের উদ্দেশে তিনি বলেন, আমাদের সমাজে যেসব অসংগতি রয়েছে—মাদকাসক্তি, নারীর প্রতি সহিংসতা, বাল্যবিবাহ, গৃহকর্মীদের নির্যাতন, খাদ্যে ভেজাল, দুর্নীতি ইত্যাদি দূর করতে ইমাম ও খতিবদের প্রতি আমার অনুরোধ থাকবে। শেখ হাসিনা আরো বলেন, এসব বিষয় থেকে মানুষ যেন বিরত থাকে, সেগুলো আপনারা আপনাদের বয়ানের মাধ্যমে মানুষের সামনে তুলে ধরবেন। সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ থেকে যেন সব পরিবারের সন্তান বিরত থাকে, সে বিষয়ে সচেতনতা সৃষ্টিতে আপনারা অবদান রাখতে পারেন।ইউক্রেন-রাশিয়া যুদ্ধ ও করোনাভাইরাসের কারণে বিশ্বব্যাপী অর্থনৈতিক মন্দা দেখা দিয়েছে উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, এ অর্থনৈতিক মন্দা থেকে যেন বাংলাদেশ দূরে থাকে। সবার কাছে আমার আবেদন থাকবে, কোথাও যেন অনাবাদি জমি না থাকে।তিনি বলেন, ব্যবসা-বাণিজ্য, শিল্প সবকিছু যেন ঠিকভাবে চলে সে জন্য আমরা শুরুর দিকেও প্রণোদনা দিয়েছি। কৃষক-শ্রমিকদেরও আমরা আর্থিকভাবে সহায়তা দিয়েছি। এ ছাড়া সমাজের নিম্নবিত্তদেরও আমরা খাদ্য সহায়তা দিয়েছি, বিনা পয়সায় টিকা দিয়েছি।মসজিদগুলোর বিষয়ে অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্যে ধর্ম মন্ত্রণালয়ের সচিব কাজী এনামুল হাসান এনডিসি জানান, মডেল মসজিদগুলোতে শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত ব্যবস্থাসহ ওজু ও নামাজের জন্য আলাদা জায়গা রয়েছে।এ ছাড়া থাকছে হজে গমনেচ্ছুদের জন্য রেজিস্ট্রেশন ও প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা, ইমাম প্রশিক্ষণ কেন্দ্র, গবেষণা কেন্দ্র ও ইসলামিক লাইব্রেরি, অটিজম কর্নার, দাফনের আগের আনুষ্ঠানিকতা, গাড়ি পার্কিং সুবিধা, হিফজখানা, প্রাক-প্রাথমিক শিক্ষা ও কোরআন শিক্ষার ব্যবস্থা, ইসলামী সাংস্কৃতিক সম্মেলন কক্ষ। ইসলামী দাওয়াত, ইসলামিক বই বিক্রয়কেন্দ্র, মসজিদের সঙ্গে দেশি-বিদেশি অতিথিদের জন্য একটি বোর্ডিং সুবিধাও থাকবে।সচিব জানান, এর আগে ২০২১ সালের ১০ জুন সারা দেশে একযোগে মোট ৫৬৪টির মধ্যে ৫০টি মডেল মসজিদের প্রথম ধাপের উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

আরো পড়ুন

এস এন্ড এফ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড © সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

Developer Design Host BD