বৃহস্পতিবার, ২৫ জুলাই ২০২৪, ০১:৫৪ অপরাহ্ন

নিউ ইয়র্কে গাঁজার অবৈধ দোকান উচ্ছেদের পরিকল্পনা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
  • সর্বশেষ আপডেট : শনিবার, ১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩
  • ৯৪ বার পড়া হয়েছে /

যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্কে গাঁজার অবৈধ দোকান উচ্ছেদের পরিকল্পনা নিয়েছে সিটি মেয়র। শহরের নিয়ম লঙ্ঘন করায় ইতোমধ্যে গাঁজার ৫৬৬টি অবৈধ দোকানদারকে জরিমানার প্রদান করা হয়েছে।

গত দুই সপ্তাহে ৫৩ টি স্থানে অভিযান চালিয়ে ৪ দশমিক ১ মিলিয়ন মূল্যমানের পণ্যসামগ্রীও আটক করা হয়। এছাড়া চলতি সপ্তাহে ম্যানহাটান ডিস্ট্রিক্ট অ্যাটর্নি অফিস ৪০০ লাইসেন্সবিহীন ‘স্মোক শপ’কে চিঠি পাঠিয়েছে। এসব চিঠিতে তাদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা গ্রহণের এবং তাদের দোকান উৎখাত করার হুঁশিয়ারি দেওয়া হয়েছে।

সিটিতে অবৈধ গাঁজা ব্যবসার বিরুদ্ধে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে মেয়র এরিক এডামস বলেছেন, ‘বৈষম্য দূর করা এবং ন্যায় বিচারের স্বার্থে সিটিতে গাঁজাকে বৈধ করা হয়েছে। কিন্তু এর অর্থ এই নয় যে, নতুন আইনে গাঁজা সামগ্রীর অনিয়ন্ত্রিত বিক্রির অবাধ সুযোগ দেওয়া হয়েছে।’

গত মঙ্গলবার মেয়র অফিসের এ সম্পর্কিত এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ‘লক্ষ্য করা যাচ্ছে যে গত কয়েক মাস ধরে অবৈধ গাঁজা ব্যবসায়ীরা গাঁজা বৈধকরণের সুযোগের অপব্যবহার করছে এবং শহর জুড়ে তারা লাইসেন্সবিহীন ‘স্মোক শপ’ গড়ে তুলেছে। বাজার দখলের এই ‘ওয়াইল্ড ওয়েস্ট’ প্রবণতা সহ্য করা হবে না। নিউ ইয়র্ক সিটি আইন পরিবর্তন করেছে, কিন্তু এই আইন সুসামঞ্জস্যভাবে, সমতার ভিত্তিতে সর্বোতভাবে কার্যকর করা হবে।’

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ‘গাঁজা সংক্রান্ত চালু এতদিনের আইনে দীর্ঘ দিন ধরে কৃষ্ণাঙ্গ মানুষেরাই শুধুমাত্র আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর হাতে নিগৃহীত হয়ে আসছিল। তাদেরকে হয়রানি করা হচ্ছিল, গ্রেপ্তার করা হচ্ছিল এবং আমাদের কমিউনিটির ভাই-বোনদের বিচারে সোপর্দ করা হচ্ছিল। এই অবস্থার অবসানের জন্য সোচ্চার ব্যক্তিরা যথার্থই কঠোর লড়াই করে গাঁজা সংক্রান্ত আইনে একটি সমতা প্রতিষ্ঠা করতে সমর্থ হয়েছেন।’

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ‘বৈধ গাঁজা শিল্পে হাজার হাজার মানুষের কর্ম সংস্থানের সুযোগ হবে এবং বছরে সিটি ৪০ মিলিয়ন ডলার রাজস্ব আয় করতে পারবে।’

মেয়রের এই বক্তব্যে বলা হয়েছে, ‘গত কয়েক মাসে সিটিতে ব্যবসায়িক ভিত্তিতে গাঁজার ডিসপেন্সারি খোলা হয়েছে। এর মধ্যে একটি চালু হয়েছে নন-প্রফিট ভিত্তিতে, যেখানে এইচ আই ভি এবং এইডস আক্রান্তরা সহায়তা পাচ্ছেন। কিন্তু এই সব বৈধ ব্যবসা অবৈধ ব্যবসায়ীদের প্রতিযোগিতার মুখে পড়েছে।’

এই অবস্থা মেনে নেয়া হবে না বলে বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়েছে। এখন এই অবৈধ গাঁজা ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে অভিযান চালানো হবে বলে ঘোষণা করা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে শেরিফ মিরান্ডা এবং নিউইয়র্ক পুলিশ ইতোমধ্যেই কার্যক্রম শুরু করেছে জানিয়ে বলা হয়েছে, গত দুই সপ্তাহে শেরিফ অফিস ৫৬৬ টি ভায়োলেশনের টিকিট ইস্যু করেছে এবং ৫৩ টি স্থানে অভিযান চালিয়ে ৪ দশমিক ১ মিলিয়ন মূল্যমানের পণ্যসামগ্রী আটক করেছে। এছাড়া এই সপ্তাহে ম্যানহাটান ডিস্ট্রিক্ট অ্যাটর্নি অফিস ৪০০ রাইসেন্সবিহীন স্মোক শপকে চিঠি পাঠিয়েছে।

আরো পড়ুন

এস এন্ড এফ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড © সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

Developer Design Host BD