বৃহস্পতিবার, ২৫ জুলাই ২০২৪, ০১:৫১ অপরাহ্ন

তীব্র গরমে অতিষ্ট জনজীবন

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • সর্বশেষ আপডেট : মঙ্গলবার, ১৮ এপ্রিল, ২০২৩
  • ১০৪ বার পড়া হয়েছে /

তীব্র গরমে হাঁসফাঁস জনজীবনে। বইছে অতি তীব্র তাপপ্রবাহ। সূর্যের গনগনে আঁচে স্থবির হয়ে পড়েছে জনজীবন। এরপরও জীবনের চাকা থেমে নেই। চাতক পাখির মতো চেয়ে আছে সবাই, কখন বৃষ্টি নামবে। কখন একটু স্বস্তি পাবে। নিরাশার মধ্যেও আবহাওয়া অফিস আশার আলোর আভাস দিয়েছে। আর তা হলো, তিন বিভাগের কোন কোন জেলায় একটু-আধটু বৃষ্টি হতে পারে। এর সঙ্গে কালবৈশাখীর ঝড়ও বয়ে যেতে পারে।আবহাওয়া অফিসের সঙ্গে তাপপ্রবাহ পরিস্থিতি এই রকম থাকতে পারে বলে আভাস দিয়েছেন কানাডার সাসকাচুয়ান বিশ্ববিদ্যালয়ের আবহাওয়া ও জলবায়ু বিষয়ক পিএইচডি গবেষক মোস্তফা কামাল পলাশ। তিনি গতকাল সকালে তার ফেসবুকে দেওয়া এক পোস্টে লেখেন, ময়মনসিংহ, সিলেট ও চট্টগ্রাম বিভাগের মানুষের জন্য বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। তবে অন্যান্য বিভাগের জন্য তেমন কোনো সুসংবাদ দেননি।এদিকে আবহাওয়া অফিস আভাস দিয়েছে, বঙ্গোপসাগর থেকে গরম ও জলীয় বাষ্পযুক্ত বাতাস বরিশাল, ঢাকা ও চট্টগ্রামের বিভাগের জেলাগুলোর ওপর দিয়ে ময়মনসিংহ ও সিলেটের বিভাগের জেলাগুলোর দিকে অগ্রসর হচ্ছে।

এখন প্রতিদিন গরমের রেকর্ড ভাঙছে। তবে এতদিন গরমে কোনো ধরনের শরীরে ঘাম দিত না। এখন কিছুটা হলেও গরমে ঘাম দিচ্ছে। তার অন্যতম কারণ এখন বাতাসে জলীয় বাষ্প রয়েছে। এতদিন না থাকার কারণে এত গরমেও শরীরে ঘাম দিচ্ছিল না।

আবহাওয়াবিদ শাহীনুল ইসলাম জানিয়েছেন, আজ মঙ্গলবার (১৮ এপ্রিল) গরমের তীব্রতা কিছুটা হলেও বাড়বে। তবে আগামীকাল বুধবার থেকে গরমের তীব্রতা কমতে পারে। কিছু কিছু জায়গার আকাশে মেঘ তৈরি হচ্ছে। এর ফলে তাপমাত্রা কমতে পারে। গতকাল সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়ে ঈশ্বরদীতে (৪৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস)। এরপরই চুয়াডাঙ্গায় ৪২ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস।তীব্র গরমের কারণে ঠান্ডা জাতীয় খাবারের চাহিদা বেড়ে গেছে। এর মধ্যে আইসক্রিম, বেল ও তরমুজ বিশেষভাবে উল্লেখযোগ্য। তীব্র গরমে ফতুল্লায় হিটস্ট্রোকে এক নারীর মৃত্যু হয়েছে বলে জানা গেছে। একই সঙ্গে গরমজনিত কারণে অনেকে অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। গরমে অতিষ্ঠ হয়ে কেরানীগঞ্জের কারাবন্দিরা ৫-৬ বার গোসল করেছেন বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে।

আবহাওয়া অধিদফতর থেকে দেওয়া আবহাওয়ার পূর্বাভাস অনুসারে ঈশ্বরদীতে রেকর্ড করা ৪৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপপ্রবাহ চলতি মৌসুমের সবচেয়ে বেশি গরম। অধিদফতরের তাপপ্রবাহ নির্ণায়কের সর্বোচ্চ মাত্রাকে বলা হয় ‘অতি তীব্র’। ৪২ ডিগ্রি তাপমাত্রা হলেই একে অতি তীব্র তাপপ্রবাহ বলা হয়। সেটি ছাড়িয়ে গতকাল সোমবার ৪৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস ছোঁয় তাপপ্রবাহ।

আরও পড়ুন
কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎকেন্দ্র: দূষণের মানমাত্রা বেশি
আজ মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত আবহাওয়ার পূর্বাভাসে উল্লেখ করা হয়েছে- রাজশাহী, পাবনা, চুয়াডাঙ্গা ও কুষ্টিয়া জেলাগুলোর ওপর দিয়ে তীব্র তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে এবং দেশের অন্যত্র মৃদু থেকে মাঝারি ধরনের তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে এবং তা অব্যাহত থাকতে পারে। সারা দেশে দিন এবং রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে।

পূর্বাভাসে দেওয়া তথ্যানুসারে, গতকাল সোমবার দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয় রাজারহাটে ২১.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এদিন দেশের কোথায় বৃষ্টি হয়নি। গতকাল সোমবার সন্ধ্যা ৬টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার জন্য দেওয়া আবহাওয়ার এই পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, পশ্চিমা লঘুচাপের বর্ধিতাংশ পশ্চিমবঙ্গ ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছে। মৌসুমের স্বাভাবিক লঘুচাপ দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে। ঢাকায় বাতাসের গতি ও দিক দক্ষিণপশ্চিম/দক্ষিণ দিক থেকে ঘণ্টায় (০৬-১২) কিলোমিটার। গতকাল সোমবার সন্ধ্যা ৬টায় ঢাকায় বাতাসের আপেক্ষিক আর্দ্রতা ছিল ৫৮ শতাংশ। আজ মঙ্গলবার সূর্যোদয় ও সূর্যাস্ত হবে যথাক্রমে ভোর ৫টা ৩৫ মিনিট ও সন্ধ্যা ৬টা ২১ মিনিটে।

আজ মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৬টার পর পরবর্তী ৪৮ ঘণ্টার (২ দিন) আবহাওয়ার অবস্থা উল্লেখ করা হয়েছে, সামান্য পরিবর্তন হতে পারে। অধিদফতরের আবহাওয়াবিদ মো. কাহীনুল ইসলাম স্বাক্ষরিত এই পূর্বাভাসে বর্ধিত পাঁচ দিনের আবহাওয়ার অবস্থা উল্লেখ করা হয়েছে, ‘বৃষ্টি/বজ্রসহ বৃষ্টিপাতের প্রবণতা বৃদ্ধি পেতে পারে।

আরো পড়ুন

এস এন্ড এফ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড © সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

Developer Design Host BD