শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৫:৩০ অপরাহ্ন

ব্রাজিলে সংসদ, রাষ্ট্রপতি ভবনসহ গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনায় হামলা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
  • সর্বশেষ আপডেট : সোমবার, ৯ জানুয়ারি, ২০২৩
  • ৬৮ বার পড়া হয়েছে / ইপেপার / প্রিন্ট ইপেপার / প্রিন্ট

ব্রাজিলের রাজধানী ব্রাসিলিয়ায় কংগ্রেস (সংসদ), প্রেসিডেন্টের প্রাসাদ ও সুপ্রিম কোর্ট ভবনে ঢুকে ব্যাপক হামলা ও ভাঙচুর চালিয়েছে সাবেক প্রেসিডেন্ট জাইর বলসোনারোর সমর্থকরা। স্থানীয় সময় গতকাল রবিবার (৮ জানুয়ারি) এসব হামলার ঘটনা ঘটে বলে আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমগুলো জানিয়েছে।দুই বছর আগে যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সমর্থকেরা যেভাবে ক্যাপিটলে হামলা ও তাণ্ডব চালিয়েছিল, ব্রাজিলে অনেকটা তেমন ঘটনাই ঘটেছে।বার্তা সংস্থা রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বলসোনারোর উগ্র সমর্থকেরা পুলিশি বাধা অমান্য করে দেশটির কংগ্রেস, প্রেসিডেন্টের প্রাসাদ ও সুপ্রিম কোর্ট ভবনে ঢুকে পড়ে এবং ব্যাপক ভাঙচুর ও ধ্বংসযজ্ঞ চালায়।এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত প্রাণহানির কোনো খবর পাওয়া যায়নি। পুলিশ ইতোমধ্যে কংগ্রেস ভবন, প্রেসিডেন্টের প্রাসাদ ও সুপ্রিম কোর্ট ভবন থেকে থেকে হামলাকারীদের সরিয়ে দিয়ে এই ভবনগুলো নিয়ন্ত্রণে নিয়েছে। তবে ভবনগুলো ছেড়ে যাওয়ার আগে সেখানে ব্যাপক ভাঙচুর চালায় হামলাকারীরা।যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশের নেতারা এ ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন। এই ঘটনার তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট লুইজ ইনাসিও লুলা দা সিলভা হামলাকারীদের ‘ধর্মান্ধ ফ্যাসিস্ট’ বলে আখ্যায়িত করেছেন।সাও পাওলো রাজ্যে একটি সরকারি সফরের সময় এক সংবাদ সম্মেলনে লুলা বলেন, ধ্বংসজ্ঞ চালানো এই বর্বরদের, যাদের আমরা বলতে পারি… ধর্মান্ধ ফ্যাসিস্ট, তারা এমন কাজ করেছে যা এই দেশের ইতিহাসে আগে কখনো হয়নি।সবাইকে শাস্তির আওতায় আনা হবে জানিয়ে তিনি বলেন, এই সমস্ত লোকজন, যারা এটি করেছে, তাদের খুঁজে বের করা হবে এবং শাস্তি দেওয়া হবে।গত ৩০ অক্টোবর ব্রাজিলের অনুষ্ঠিত প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের পর থেকে দেশটির রাজনৈতিক অস্থিরতা বিরাজ করছে। ওই নির্বাচনে ডানপন্থি জাইর বলসোনারোকে হারিয়ে ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হন লুলা দা সিলভা।

আরো পড়ুন

এস এন্ড এফ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড © সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

Developer Design Host BD