শনিবার, ১৮ মে ২০২৪, ০৮:১৩ অপরাহ্ন

পাহাড়ি সন্ত্রাসীদের গুলিতে প্রাণ কেড়ে নিলো আরো এক আওয়ামীলীগ কর্মী ইউনিয়ন পরিষদের সদস্যের

বান্দরবান জেলা প্রতিনিধি
  • সর্বশেষ আপডেট : মঙ্গলবার, ১৬ জুন, ২০২০
  • ৮০৬ বার পড়া হয়েছে / ইপেপার / প্রিন্ট ইপেপার / প্রিন্ট

গত কাল সন্ধ্যা৭.৩০ ঘটিকায় বান্দরবান সদর উপজেলা ২ নং কুহালং ইউনিয়নের ৫ নং ওয়ার্ডের মেম্বার ৫ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সদস্য চাইসাহ্লা মারমাকে নিজ বাড়ী বাকি ছড়া মাজের পাড়ায় একদল সন্ত্রাসী তার নিজ বাড়ি থেকে ডেকে বের করে পরে গুলি করে সন্ত্রাসী বাহিনী পালিয়ে যায় গুলিবিদ্ব অবস্থায় বান্দরবান সদর হসপিটালে ভর্তি করলে সেখানে থেকে রাত ৯.০০টার দিকে চট্টগ্রামে রেফার করেন

চট্রগ্রাম মেডিকেলে নেওয়ার পথেই রাত ১১.টায় প্রাণ হারায় চাইসাহ্লা মারমা

ঘটনার পর ওই এলাকায় সেনাবাহিনী ও পুলিশ উপস্থিত হয়েছে।

বান্দরবান সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শহীদুল ইসলাম জানিয়েছেন ইউপি সদস‍্য চাইন ছাহ্লাকে বাকি ছড়া লামার পাড়ার বাসিন্দা মংউসে মারমা বাসা থেকে ডেকে নিয়ে যায়। পড়ে অজ্ঞাত সন্ত্রাসীরা তাকে গুলি করলে ইউপি সদস্য গুরুতর আহত হয়। স্থানীয়রা গুরুতর আহত ইউপি সদস্যকে উদ্ধার করে প্রথমে বান্দরবান সদর হাসপাতালে নিয়ে যায়। পরে সেখান থেকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। কারা এ ঘটনা ঘটিয়েছে তাৎক্ষণিকভাবে জানা যায়নি।

স্থানীয়রা জানিয়েছেন দীর্ঘদিন থেকে আধিপত্যের লড়াইয়ে আঞ্চলিক রাজনৈতিক দল জনসংহতি সমিতির সাথে আওয়ামী লীগের বিরোধ চলে আসছে। অন্যদিকে মগ ন্যাশনাল পার্টির আধিপত্য ও জনসংহতি সমিতির সংস্কার গ্রুপের আবির্ভাব নিয়ে এলাকায় ব্যাপক আলোচনা চলছে। ইউপি সদস্যের ওপর হামলার ঘটনা এর রেশ হতে পারে বলে অনেকে মনে করছেন
তবে ঘটনার সত্যতা এখনো জানা যায়নি এই ঘটনার পর থেকে এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে।
এই করোনা মহামারির মধ্যেও থেমে নেই পাহাড়ের সন্ত্রাসী বাহিনীরা
এ বিষয়ে তীব্র নিন্দা জানিয়েছে সমাজের বিশিষ্টজনেরা।

আরো পড়ুন

এস এন্ড এফ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড © সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

Developer Design Host BD