শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৩:৫০ অপরাহ্ন

মুখ খুললেন রাজ: দেখতে চান গডফাদারদের

বিনোদন ডেস্ক
  • সর্বশেষ আপডেট : মঙ্গলবার, ৩ জানুয়ারি, ২০২৩
  • ৮২ বার পড়া হয়েছে / ইপেপার / প্রিন্ট ইপেপার / প্রিন্ট

গত বছরের শুরু থেকে প্রেম ও দাম্পত্য জীবন নিয়ে আলোচনায় ছিল রাজ-পরী। ঘর আলো করে ঘরে আসে তাদের সন্তান রাজ্য। ভালোই চলছিলো তাদের সংসার। হঠ্যৎ ৩০ ডিসেম্বর মধুময় সম্পর্কের বিচ্ছেদের ঘোষণা দেয় পরী।

গত রবিবার (১ জানুয়ারি) সংবাদ সম্মেলন করে বিচ্ছেদের কথা নিশ্চিত করেন অভিনেত্রী।এতদিন নিজেদের মধ্যকার সম্পর্ক নিয়ে জনসম্মুখে পরীমণি কথা বললেও চুপ ছিলেন রাজ। সবশেষ পরীমণির অভিযোগ ও ঘর ছেড়ে যাওয়ার ঘোষণার পর আর সহ্য করতে পারলেন না তিনি। নিরবতা ভেঙ্গে ক্ষোভ ও হতাশা প্রকাশ করেন।গতকাল ২ জানুয়ারি (সোমবার) গণমাধ্যমকে রাজ বলেন, ‘মাই বেডরুম ইজ প্রাইভেট, ভেরি প্রাইভেট। নট ফর পাবলিক। বাট আমার বেডরুম নিয়ে সবাই মজা নিচ্ছে এখন। পরী এখন যা করছে বা তার যা মন চায় করুক। তবে এটুকু স্পষ্ট করি, আমি কোনও ভুল করিনি। এবং আমাদের আর এক হওয়া হবে না।’

সে কথার পর সম্ভবত পরীর কাছ থেকে ভালো জবাব পাননি রাজ। আর সে কারণেই হয়তো আজ মঙ্গলবার (৩ জানুয়ারি) ভোর ৪টা ৪৮ মিনিটের দিকে রাজ তার ব্যক্তিগত ফেসবুক প্রোফাইলে লিখেছেন, ‘হ্যালো গডফাদারস অ্যান্ড গং। আই ওয়ান্ট টু নো ইউ গাইজ। আই লাইভ ইন ঢাকা, আই উড লাভ টু চিয়ার্স।’

রাজের পোস্ট দেখে মনে হচ্ছে তিনি হয়তো হুমকি পেয়েছেন বা ভয় পাচ্ছেন। তার জবাবেই এসব কথা লিখেছেন। এবং সেই উড়ো হুমকিদাতাদের সরাসরি দেখেও নিতে চান রাজ।উল্লেখ্য, ২০২১ সালের ১৭ অক্টোবর গোপনে বিয়ে করেন ঢাকাই সিনেমার আলোচিত নায়িকা পরীমণি ও অভিনেতা শরিফুল রাজ। মাত্র সাতদিনের পরিচয়ে তারা বিয়ে করেছিলেন। ২০২২ সালের ১০ জানুয়ারি সেই খবর প্রকাশ্যে আনেন তারা। একই দিন সন্তানধারণের বার্তাটিও দেন এ দম্পতি। এরপর ২২ জানুয়ারি পারিবারিক আয়োজনে বিয়ে সারেন। একই বছরের ১০ আগস্ট তাদের ঘর আলো করে এসেছে পুত্রসন্তান-শাহীম মুহাম্মদ রাজ্য।

আরো পড়ুন

এস এন্ড এফ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড © সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

Developer Design Host BD