শনিবার, ১৮ মে ২০২৪, ০৭:১৪ অপরাহ্ন

১০০ কোটি আয় করে চমক দেখাল যে পাকিস্তানি ছবি

বিনোদন ডেস্ক
  • সর্বশেষ আপডেট : শুক্রবার, ৪ নভেম্বর, ২০২২
  • ১১৯ বার পড়া হয়েছে / ইপেপার / প্রিন্ট ইপেপার / প্রিন্ট

মুক্তির ১৬ দিন পরও হুমড়ি খেয়ে সিনেমাটি দেখছেন দর্শক। বক্স অফিসে গড়ছে একের পর এক রেকর্ড—পাকিস্তানি সিনেমায় এমন দৃশ্য নতুন। এত বেশি আয়ের মুখ আগে দেখেনি পাকিস্তানি অন্য কোনো সিনেমা। পাকিস্তানের ইন্ডাস্ট্রির সাপেক্ষে সিনেমার বাজেটও অকল্পনীয়। সিনেমাটির নাম দ্য লেজেন্ড অব মওলা জাট। পরিচালক বিলাল লাশহারি।শুটিং শুরুর সময় খবর ছড়িয়েছিল, সিনেমার বাজেট ৫০ কোটি পাকিস্তানি রুপি। শুনে গুজব বলে উড়িয়ে দিয়েছিলেন পাকিস্তানি দর্শক। তাদের কাছে এ বাজেট এতটাই অকল্পনীয়। এত টাকা তুলে আনার মতো এত বড় বাজার তো পাকিস্তানের সিনেমার নেই। ইন্টারনেট মুভি ডেটাবেজ (আইএমডিবি) বলছে, শেষ পর্যন্ত ৭০ কোটিতে গিয়ে দাঁড়ায় ছবির বাজেট। সিনেমাটি ১৩ অক্টোবর মুক্তি পায়।এই প্রথম বিশ্বের ২৩টি দেশের ৪০০ হলে একযোগে মুক্তি পেল পাকিস্তানি কোনো সিনেমা। প্রথম দিন থেকেই ভালো ব্যবসা করতে থাকে দ্য লেজেন্ড অব মওলা জাট। মাত্র ১০ দিনে পাকিস্তানি সিনেমার ইতিহাসে রেকর্ড গড়ে ১০০ কোটি পাকিস্তানি রুপি আয় করে জাট।প্রথম সপ্তাহে শুধু পাকিস্তান থেকেই সিনেমাটি ১১ কোটি ৩০ লাখ রুপি আয় করে, এটিও ছিল নতুন রেকর্ড। এর আগে সালমান খানের সুলতান পাকিস্তান থেকে প্রথম সপ্তাহে ১১ কোটি ২৫ লাখ রুপি আয় করেছিল। সমালোচকেরা বলছেন, ছবিটি দিয়ে পাকিস্তানি সিনেমার নতুন জন্ম হলো।কেন সিনেমাটি দর্শকের এত ভালো লেগেছে সে প্রসঙ্গে বেশিরভাগ দর্শকই বলেছেন গল্পটির উপস্থাপনা ও একের পর এক চমক দর্শককে পর্দা থেকে চোখ সরাতে দেয় না। ঐতিহাসিক সিনেমার প্রেক্ষাপট মানেই বড় পরিসর। সাজসজ্জা, মেকআপ, যথাযথভাবে সময়কে ধরতে না পারলে দর্শক মুখ ফিরিয়ে নেবেন—এমন ভাবনা শুরু থেকেই পরিচালকের ছিল। ক্যারিয়ারের এই দ্বিতীয় সিনেমা নিয়ে তাকে অনেক সংগ্রাম করতে হয়েছে। ২০১৯ সালের পবিত্র ঈদুল ফিতরে সিনেমাটির মুক্তির কথা থাকলেও কপিরাইট নিয়ে প্রযোজককে ভুগতে হয়েছে।সিনেমায় মওলা জাট চরিত্রে অভিনয় করেছেন পাকিস্তানি গায়ক-অভিনেতা ফাওয়াদ খান, নুরি নাট চরিত্রে অভিনয় করেছেন হামজা আলী আব্বাসী। আরও আছেন মাহিরা খান, হুমাইমা মালিক, গহর রশিদ প্রমুখ।২৮ অক্টোবর পর্যন্ত সিনেমাটির সর্বমোট আয় ছিল ১১৫ কোটি রুপি। শুধু পাকিস্তান থেকেই রেকর্ড গড়ে আয় হয়েছে ৩৩ কোটি রুপি। আন্তর্জাতিক বাজার থেকে আয় করে ৮২ কোটি রুপি। এটিও নতুন রেকর্ড।

আরো পড়ুন

এস এন্ড এফ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড © সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

Developer Design Host BD