শনিবার, ১৮ মে ২০২৪, ০৬:১৪ অপরাহ্ন

লামায় জোরপূর্বক বিয়ের চেষ্টায় আত্মহত্যা তোরণীর।

মোঃ সোহেল রানা বান্দরবান জেলা প্রতিনিধি
  • সর্বশেষ আপডেট : সোমবার, ২৯ জুন, ২০২০
  • ৮৬৯ বার পড়া হয়েছে / ইপেপার / প্রিন্ট ইপেপার / প্রিন্ট

আজ ২৯ জুন সোমবার লামায় নাবালিকা মেয়েকে জোর করে বিয়ে দেয়ার চেষ্টা করায় বিষপান করে সদ্য এসএসসি পাস ছাত্রীর মৃত্যু হয়েছে। উপজেলা সরই ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডের আন্ধারী মুজিবরের দোকান এলাকায় এই ঘটনা ঘটে।

পার্শ্ববর্তী লোহাগাড়া উপজেলার পদুয়া হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মেয়েটি মারা যায়। গতকাল রোববার দিবাগত রাত সাড়ে ৮টায় নিজ বাড়িতে মেয়েটি বিষপান করলে প্রথমে সরই বাজারে ফার্মেসিতে তার চিকিৎসা করা হয়। পরে তার অবস্থার আরো অবনতি হলে রাতেই পদুয়া হাসপাতালে নেয়া হয়।

বিষপানে নিহত রুবিনা আকতার (১৫) মুজিবরের দোকান এলাকার মোঃ রবিউল হোসেন এর মেয়ে এবং সরই উচ্চ বিদ্যালয়ের থেকে এসএসসি পাস করে ।

মেয়েটির কয়েকজন আশপাশের লোকজন জানায়, সে লেখাপড়ায় ভালো ছিল এবং সে আরো লেখাপড়া করার আগ্রহী ছিল।
তার অভিভাবকরা মতের বিরুদ্ধে জোর করে বিবাহের আয়োজন করায় সে বিষপান করে।

বান্দরবান জেলা, লামা থানার ৫ নং সরই ইউনিয়নের,আন্ধারী গ্রামে বাবার কু_মানসিকতায় ঝরে গেল বলে দাবী এলাকা বাসীর বক্তব্য।

মেয়ে সদ্য এস,এস,সি পাশ করে কিন্তু বাবার কথা মতে এলাকার ইব্রাহীম নামের একজন বাইক চালকের সাথে বিয়ে ঠিক করে। কিন্তু সে আরো লেখা পড়া করবে বলে বিয়েতে রাজী হয়নি।
রাজী নি।
আর রাজি না হওয়ায় পরিবার থেকে চলে পাশবিক নির্যাতন। নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে বেছে নিয়েছে মৃত্যুপথ আর পরিবারের গাফিলতিতে ঝড়ে গেল একটি প্রাণ

আরো পড়ুন

এস এন্ড এফ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড © সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

Developer Design Host BD